1. admin@www.independentbd.news : independentbd.news : News Desk
  2. sheikhnadir81@gmail.com : sk deen mahmud : sk deen mahmud
একজন সফল ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা কপিলমুনির আবু হোসেন - independentbd.news
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কপিলমুনিতে স্বামীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ প্রচেষ্টার অভিযোগ! উপকূলীয় পাইকগাছায় পানিবন্দি সহস্রাধিক পরিবারে সংকট বাড়ছে, অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ পুণ:স্থাপন হয়নি এখনো ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নলছিটিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ডুমুরিয়ায় বখাটের হাতে লাঞ্ছিত স্কুল ছাত্রীর আত্নহত্যা! সৈয়দপুরের তিন কৃতি খেলোয়াড়কে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সংবর্ধনা পৃথিবীর মতো গ্রহের সন্ধান নাসার, বছর হবে ১২.৮ দিনেই প্রধানমন্ত্রী দুর্গত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন বৃহস্পতিবার ডুমুরিয়ায় মেরিন ফিসারিজ প্রকল্পের ৫দিনের প্রশিক্ষণ শুরু প্রস্তুতি পর্বে রাতে ফের যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি শান্ত-লিটনরা পাকিস্তানে ব্যাপক সংঘর্ষে ৫ সৈন্যসহ নিহত ২৮

একজন সফল ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা কপিলমুনির আবু হোসেন

শেখ দীন মাহমুদঃঃ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২৪
  • ১৭০ বার পড়া হয়েছে
abuhossain-10135

আবু হোসেন। খুলনার পাইকগাছা উপজেলার কাশিমনগর নতুন মাছ কাটার মৎস্য আড়ৎদার ব্যবসায়ী সমিতির সাধরণ সম্পাদক একজন সফল ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা। নিজ ব্যবসার পাশাপাশি এলাকার বহু ছোট ছোট ব্যবসায়ীকে সংঘবদ্ধ করে গড়ে তুলেছেন মাছের আলাদা পাইকারী কেনা-বাজার বাজার। তার দেখানো পথে অনেকেইে এখন স্বাবলম্বী।

আবু হোসেন খুলনার পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নের গোলাবাটি এলাকার ইসমাইল শেখ এর ছেলে। পৈত্রিক পেশার কারণে ২০০৩ সাল থেকে তিনি স্থানীয় কপিলমুনি বিনোদগঞ্জে মৎস্য আড়ৎদারী ব্যবসার মাধ্যমে শুরু করেন ব্যবসা। এরপর কপোতাক্ষ খননে মাছ বাজারে উচ্ছিষ্ট মাটি ফেলায় অস্তিত্ব সংকটে পড়ে জনগুরুত্বপূর্ণ মাছের বাজারটি। পুণর্বাসনের ব্যবস্থা না করেই অলিখিত উচ্ছেদের কবলে এক রকম উদ্বাস্তু হয়ে পড়েন মাছ ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে আড়ৎদারসহ সংশ্লিষ্টরা। এক কথায় স্থান সংকটে সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনার অভাবে চিংড়ি শিল্প থেকে শুরু করে মাছ উৎপাদন খামারীদের মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করে। সংশ্লিষ্ট মাছ ব্যবসায়ীদের অনেকেই পেশা বদলানোর কথা চিন্তা করেন। সংশ্লিষ্ট ব্যবসার সাথে জড়িত অনেকেই বেকার হয়ে পড়েন।

ঠিক এমন পরিস্থিতিতে আড়ৎ ব্যবসায়ীদের একটি অংশকে সংঘবদ্ধ করে আলোর পথ দেখান আবু হোসেন। কপিলমুনির প্রায় ১ কি:মি: উত্তরে কাশিমনগর বাজারে নোঙর করেন তারা। শুরু করেন ব্যবসা। তবে সেখানে নানা প্রতিবন্ধকতার মুখে বাজারের দক্ষিণ প্রান্তে কপিলমুনির সন্নিকটে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির ইজারা নিয়ে সেখানে গড়ে তোলেন নতুন মাছ কাটা। বর্তমানে সেখানে আড়ৎদার বৃদ্ধির পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন প্রান্তের পাইকারী মাছ ব্যবসায়ীরা এসে ভীঁড় জমান এ বাজারে।

বর্তমানে মৎস্য আড়ৎকে কেন্দ্র করে গত কয়েক বছরে সেখনে গড়ে উঠেছে বৃহৎ বাণিজ্যিক মোকাম। পাইকগাছার প্রত্যন্ত এলাকার পাশাপাশি ডুমুরিয়া, কয়রার একাংশ, আশাশুণি, তালা ও দাকোপের বিস্তীর্ণ এলাকায় উৎপাদিত মাছের সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনার অন্যতম ক্ষেত্র হিসেবে ইতোমধ্যে বিশেষ খ্যাতি পেয়েছে নতুন মাছ কাটাটি।

জনপদের অধিকাংশ মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে মাছ চাষের সাথে জড়িত। অনেকের জীবিকার মাধ্যমও তাই মাছ। আর সেই মাছের বাজারকে কেন্দ্র করে তাই কাশিমনগর মাছ কাটা এলাকায় গড়ে উঠেছে হোটেল, রেস্তোরা, দোকান-পাঠ, বাণিজ্য বিপনীসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স কোম্পানীর শো-রুম। জনসমাগম ভাল থাকায় বিক্রিও বেড়েছে সেখানে। ক্রমান্বয়ে নতুন বাজারটি সম্প্রসারিত হচ্ছে। চাহিদার প্রেক্ষিতে সেখানকার গড়ে ওঠাদোকান-পাটগুলোর ভাড়া ও অগ্রিম জামানতও বেড়েছে কয়েক গুণ। আর এসবের পেছনের মূল কারিগরের নাম আবু হোসেন।

এদিকে মৎস্য আড়ৎ ব্যবসা ও মাছ ব্যবসার সাথে জড়িত অধিকাংশরাই এখন স্বাবলম্বী। প্রতি নিয়ত স্বপ্ন দেখেন আরো বেড়ে ওঠার। ধারণা করা হচ্ছে, আগামী ২/৫ বছরের মধ্যে নতুন মাছ কাটা এলাকাকে ঘিরে গড়ে উঠবে জনপদের সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক মোকাম।
তথ্যানুসন্ধানে জানাযায়, ব্যবসার পাশাপাশি আবুল হোসেন বিভিন্ন সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠন, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। স্থানীয় গোলাবাটি স:প্রা: বিদ্যালয়ের এসএমসি কমিটির ৪ বার সদস্য নির্বাচিত হন। গোলাবাটি জামে মসজিদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপদেষ্টা কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সাবেক সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন স্থানীয় ইউ এস কপোতাক্ষ যুব সংঘের। রয়েছেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের সাথে। ২০০১ সালে তিনি মফস্বল সাংবাদিকতায় জড়িয়ে পড়েন। যদিও সেখানে স্থায়ী হননি তিনি। এরপর ২০১২ সাল থেকে তিনি ব্যবসায়ীদের প্রত্যক্ষ ম্যান্ডেটে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে অদ্যবধি নের্তৃত্ব দিয়ে আসছেন কাশিমনগর মৎস্য আড়ৎ মালিক সমিতির।

এদিকে আবু হোসেনকে নিয়ে ইতোমধ্যে মহল বিশেষ শুরু হয়েছে নানাবিধ ষড়যন্ত্র। সম্প্রতি কপিলমুনির রামনগর ওয়ার্ড সদস্য সাতক্ষীরায় গ্রেফতারের খবরে আবু হোসেনকে জড়িয়ে নানাবিধ কুৎসা রটানো হচ্ছে।

এব্যাপারে আবু হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিভিন্ন সময় মহলবিশেষ তার কাছ থেকে সুবিধা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে মূলত তার বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন ধরে ষড়যন্ত্র করে আসছে। সাম্প্রতিক ঘটনা তারই বহি:প্রকাশ মাত্র। তিনি প্রকাশিত সংবাদের অংশ বিশেষের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইন্ডিপেন্ডেন্টবিডি আইটি টিম

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত: ইন্ডিপেন্ডেন্টবিডি মিডিয়া কর্পোরেশন লিঃ