1. admin@www.independentbd.news : independentbd.news : News Desk
  2. sheikhnadir81@gmail.com : sk deen mahmud : sk deen mahmud
রহমান স্যারের হাত ধরে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত শুরু হল ”পরিশোধিত বিল” কার্যক্রম - independentbd.news
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কপিলমুনিতে স্বামীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ প্রচেষ্টার অভিযোগ! উপকূলীয় পাইকগাছায় পানিবন্দি সহস্রাধিক পরিবারে সংকট বাড়ছে, অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ পুণ:স্থাপন হয়নি এখনো ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নলছিটিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ডুমুরিয়ায় বখাটের হাতে লাঞ্ছিত স্কুল ছাত্রীর আত্নহত্যা! সৈয়দপুরের তিন কৃতি খেলোয়াড়কে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সংবর্ধনা পৃথিবীর মতো গ্রহের সন্ধান নাসার, বছর হবে ১২.৮ দিনেই প্রধানমন্ত্রী দুর্গত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন বৃহস্পতিবার ডুমুরিয়ায় মেরিন ফিসারিজ প্রকল্পের ৫দিনের প্রশিক্ষণ শুরু প্রস্তুতি পর্বে রাতে ফের যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি শান্ত-লিটনরা পাকিস্তানে ব্যাপক সংঘর্ষে ৫ সৈন্যসহ নিহত ২৮

রহমান স্যারের হাত ধরে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত শুরু হল ”পরিশোধিত বিল” কার্যক্রম

নিজস্ব প্রতিবেদকঃঃ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২ মে, ২০২৩
  • ১৪৬ বার পড়া হয়েছে

কপিলমুনির চলার সাথী’র প্রতিষ্ঠাতা শেখ আব্দুর রহমানের হাত ধরে এবার যাত্রা শুরু হল নিরব সহযোগীতায় পশোধিত বিল” সিস্টেম। কানাডিয়ান সিস্টেম থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি মঙ্গলবার (২ মে) সকাল থেকে তিনি ব্যতিক্রমী এ মানবিক কার্যক্রম শুরু করেন। তার বিশ্বাস তাকে দেখে অন্যরাও উদ্বুদ্ধ হবেন এ কার্যক্রমে।

নিরব সহযোগীতার এ কার্যক্রম সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, কোন হোটেল রেস্তোরায় কিংবা তৈরি পোশাকের দোকান থেকে তিনি যখন কিছু ক্রয় করবেন তখন, নিজের বিল পরিশোধের পর সম পরিমাণ টাকা তিনি দোকানির কাছে অতিরিক্ত পরিশোধ করবেন। পরবর্তীতে দোকানি তার নিজ দায়িত্বে জমাকৃত অর্থ অসহায় দুস্তদের মধ্যে খাদ্যসহ তৈরি পোশাক প্রদানের মধ্য দিয়ে বন্টন করবেন। এক্ষেত্রে দাতার দানের বিষয়টি যেমন উহ্য থাকবে তেমনি ভিক্ষাবৃত্তি নয়, ক্ষুধার্তরা হোটেল-রেস্তোরায় গিয়ে বলবেন তার জন্য কোন পরিশোধিত বিল কিংবা পেনশন মিল বরাদ্দ রয়েছে কিনা? থাকলে দোকানি তাকে বরাদ্দ দিবেন। না থাকলে উপস্থিত সহৃদয় ব্যাক্তিরাও সহযোগীতার হাত বাড়াতে পারেন। এমনি সিস্টেমটি বহুল প্রচার হলে সহৃদয়বান বহু মানুষ এগিয়ে আসবেন মহতি এ উদ্যোগে। আর এমন একদিন আসবে যেদিন বাংলাদেশে কোন অসহায় ক্ষুধার্তকে রাস্তায় রাস্তায় খাবারের জন্য ভিক্ষা করতে হবেনা।

শেখ আব্দুর রহমান খুলনার পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনির কাশিমনগরস্থ কে.আর.আর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং কপিলমুনিস্থ প্রত্যুষে হাঁটার সংগঠন চলার সাথী’র প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়া তিনি পাইকগাছা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক। শিক্ষক নেতা হিসেবে সারাদেশে সুখ্যাতি ছড়িয়ে রয়েছে তার।

তার পিতা মরহুম শেখ আব্দুল জব্বার ছিলেন, একজন সংষ্কৃতিত ব্যাক্তিত্ব, চাচা মরহুম শেখ এজাহার আলী ও বজলুর রহমানর ছলেন, সমাজ হিতৈষী ও সৃষ্টিশীল চেতনার অধিকারী। দাদা শেখ আছমত উল্লাহ ও দিরাজতুল্লাহরাও মানবিক ও প্রজাবৎসল ছিলেন।

যার ধারাবাহিকতায় শেখ আব্দুর রহমানও হয়ে উঠেছেন সমাজ হিতৈষী মানবিক ও সৃষ্টিশীল চেতনার অধিকারী।

তিনি বলেন, আমৃত্যু তার এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। দেশের অন্যতম ব্যাতিক্রমী আয়োজনে উদ্বুদ্ধ হয়ে একদিন সারা দেশের মানুষ এগিয়ে আসবে। প্রান্তরজুড়ে মানষপটে উজ্জ্বল হবে মানবিকতার সোনালী রোদ্দুর। ত্বরান্বিত হবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার অগ্রযাত্রা। একসাথে সবাই গাইবে কাজী নজরুলের সাম্যের গান কিংবা গোটা বাংলাদেশ একদিন রবীন্দ্র নাথের ভাষায় একসাথে গেয়ে উঠবে, আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি। শেখ আব্দুর রহমানের হাত ধরে পরিশোধিত বিল কার্য়ক্রম ছড়িয়ে পড়–ক সারা বাংলায়, এমন প্রত্যশা সাধারণ মানুষের।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইন্ডিপেন্ডেন্টবিডি আইটি টিম

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত: ইন্ডিপেন্ডেন্টবিডি মিডিয়া কর্পোরেশন লিঃ